BUILDING MATERIALS

ভালো ইট চেনার উপায়

ইট এমন একাটি উপাদান, যা বাড়ী নির্মান করার প্রথমেই আপনার মাথায়  আসে । কিন্তু সমস্যা হচ্ছে ইট সম্পর্কে আপনাদের তেমন কোন আইডিইয়া থাকেনা। ইট কেনার আগে অবশ্যই আপনাকে ইট সম্পর্কে খুবই ভালো ভাবে জেনে নিতে হবে। তাই আসুন ইট সম্পর্কে বিস্তারিত জানি:

  1. 1)একটি ইট নিয়ে তার গায়ে নখের আঁচড় কাটার চেষ্টা করলে তাতে আঁচড় পড়বেনা । যদি আঁচড় পরে তাহলে বুঝতে হবে ইট টি ভালো না।
  2. 2) একটি ইটকে অন্য একটি ইট দিয়ে আঘাত করলে যদি ঘাতব শব্দ উৎপন্ন হয়,  তা হলে বুঝতে হবে ইটটি ভালো।
  3. 3) দুইটি ইটকে টি (T) এর মতো করে ধরে ২ মিটার উঁচু থেকে ফেলে দিলে যদি ভেঙ্গে যায়,  তা হলে ইটটি ভালোনা আর যদি ভেঙ্গে না যায়,  তাহলে ইটটি ভালো।
  4. 4) একটি পাত্রে যদি ইটকে ভিজানো হয় এবং তা বুদবুদ সহ কারে বেশ পরিমাণ পানি শোষণ করে নেয় এবং পানি ঘোলাটে হয়,  তবে এটি ভালো ইট নয়।
  5. 5) একটি ইটটে ভেঙ্গে টুকরা করা হলে যদি টুকরা গুলোর রঙ দেখতে একই রকম হয়,  তবে এটি ভালো ইট।
  6. 6) ইটের ধার ও কোণ গুলো সুক্ষ ও তীক্ষণো হলে বুঝতে হবে এটি ভালো ইট।
  7. 7) ইটের পৃষ্ট মসৃন ও সমতল হলে এটি ভালো ইট।
  8. 8) ইটের মাপ আদর্শ থাকবে, যেমনঃ (৯.৫” x ৪.৫” x ২.৭৫”)
  9. 9) ইটের ওজন ৩.৫ কেজির বেশী হবে না।
  10. 10) ভালো ইট পানিতে ভেজালে আয়তনে পরিবর্তন হয় না।

ইটেরবিবরণ :

আমাদের দেশে সাধারনত ৯.৫” x ৪.৫” x ২.৭৫” সাইজেরইট, যামিলিমিটারে ( 238 x 114 x 70 ) বাংলা ইট ব্যাবহার হয়ে থাকে, এইমান PWD এর সিডিউল অনুযায়ী।মসলাসহ ১০” x ৫” x ৩” ( 250 x 125 x 76 )

ইটের প্রকারঃ

  1. ইট পাঁচ প্রকার
    ১। ১ম শ্রেনীর ইট।
    ২। ২য় শ্রেনীর ইট।
    ৩। ৩য় শ্রেনীর ইট।
    ৪। ঝামাইট।
    ৫। পিকেটইট।

ইটের কাজের পরিমাণ বাহির করার একক পদ্ধতিঃ

প্রতি ১০০ sft জায়গায় ইটের ৫”  গাঁথুনিতে ইট লাগে = ৫০০টি। প্রতি ১০০ cft ইটের ১০” গাঁথুনিতে ইট লাগে = ১১৫০টি। প্রতি ১০০ sft জায়গাতে হেরিংবোন বন্ড করতে ইট লাগে = ৫০০টি। প্রতি ১০০ sft জায়গাতে সলিং করতে ইট লাগে = ৩০০টি।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *